কাহলিল জিবরানের উক্তি

প্রেম,সৌন্দর্য,আধ্যাত্মিকতার কথক কাহলিল জিবরান।একাধারে ঔপন্যাসিক,প্রবন্ধকার,কবি এবং চিত্রকর ছিলেন তিনি। ১৯২৩ সালে নিউইয়র্কে প্রকাশিত হয় তার প্রথম অতিন
কাহলিল জিবরানের উক্তি

Kahlil Gibran Best Quotes

প্রেম,সৌন্দর্য,আধ্যাত্মিকতার কথক কাহলিল জিবরান।একাধারে ঔপন্যাসিক,প্রবন্ধকার,কবি এবং চিত্রকর ছিলেন তিনি। ১৯২৩ সালে নিউইয়র্কে প্রকাশিত হয় তার প্রথম অতিন্দ্রীয়বাদী গদ্য-কবিতার সংকলন “দি প্রফেট”।মহান প্রতিভাবান এই ব্যক্তির প্রত্যেকটি লেখা মন্ত্রমুগ্ধের মতো।আধুনিক এই বস্তুবাদ জগতে তিনি ধর্মীয় সীমানার বাইরে থেকে আধ্যাত্মিকতা,অতীন্দ্রিয়বোধ তুলে ধরেছেন তার লেখায়।যান্ত্রিক সভ্যতায় ছাপা পড়া পৃথিবীর গতানুগতিক ব্যাপারসমূহকে তিনি নতুনভাবে সংজ্ঞায়িত করেছেন।জিবরানের কবিতার উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো-ভৌগোলিক বিচরণের ক্ষেত্রে সময়হীনতা এবং মরমী দার্শনিকের এক অবাস্তব জগৎ।নিম্নে  কাহলিল জিবরানের কিছু  উক্তি তুলে ধরা হল-



"ভালবাসা" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

হে ঈশ্বর,আপনার হাত দিয়েই আপনি আমার হৃদয়ে রোপণ করেছেন একটি সাদা গোলাপ কিন্তু সেই গোলাপের চারপাশে সৃষ্টি করেছেন কাঁটার প্রতিবন্ধকতা।

 

বিরহের দিনও কি তবে মিলনেরও দিন?

চিরকাল এমনি হয়েছে,বিচ্ছেদের মুহুর্ত না আসা পর্যন্ত ভালবাসা তার গভীরতা বুঝতে পারেনা।

 

কারণ ভালবাসা তোমাকে যেমন রাজমুকুটে ভূষিত করে,তেমনি সে তোমাকে ক্রুশবিদ্ধ করে।

 

নিজেকে পূর্ণতা দেওয়া ছাড়া ভালবাসার আর কোনো আকাঙ্ক্ষা নেই,কিন্তু যদি তুমি ভালবাসো তবে আকাঙ্ক্ষা থাকতে হবে।

তাই একে নিজের আকাঙ্ক্ষায় পরিণত করো।



 

"বিবাহ" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

তোমরা একসাথে দাঁড়িয়ে থাকবে,কিন্তু মিলেমিশে যাবে না,

কারণ মন্দিরের পিলারগুলো মাঝখানে ফাঁকা রেখেই দাঁড়িয়ে থাকে।

আর ওক এবং সাইপ্রাস গাছ একে অন্যের ছায়ায় বেড়ে ওঠতে পারে না।



 

"সন্তান" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

তোমার সন্তানেরা তোমার সন্তান নয়।

তারা তোমার জীবনের আকুল প্রত্যাশার পুত্র-কণ্যা।

তারা তোমাদের মাধ্যমে আসে,কিন্তু তোমাদের ভেতরে জন্ম নেয় না।

এবং তারা যদিও তোমাদের সঙ্গে থাকে,তারা তোমাদের সম্পদ নয়।

 

তাদেরকে তোমার ভালবাসা দিতে পারো কিন্তু চিন্তাগুলোকে না;তাদেরও রয়েছে নিজস্ব চিন্তা-ভাবনা।

তাদের দেহকে আশ্রয় দিতে পারো,আত্মাকে না।

কারণ তাদের আত্মা বসবাস করে আগামীর আশ্রয়ে;

সেখানে তুমি স্বপ্নেও যেতে পারবে না।



 

"বন্ধুত্ব" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

বন্ধু আমার,আমাকে যা মনে হয়,আমি তা নই।তবে যা-ই মনে হোক আমি একটা পোশাক পরিধান করি,যত্নে বোনা একটা পোশাক,যা রক্ষা করে তোমার সন্দেহ থেকে আমাকে এবং আমার অবহেলা থেকে তোমাকে।



 

"কর্ম" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

এবং আমি বলি,আকাঙ্ক্ষাহীন জীবন আসলেই অন্ধকার

এবং জ্ঞানহীন যত আকাঙ্ক্ষা সকলই অন্ধ,

এবং কর্মহীন যত জ্ঞান সকলই বৃথা

এবং ভালবাসাহীন যত কর্ম সকলই নিষ্ফল।



 

"সুখ-দুঃখ" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

অনেকে বলে, “সুখ-দুঃখ থেকে মহীয়ান”,আবার অনেকে বলে, “না,দুঃখই মহীয়ান”

কিন্তু আমি বলি,তারা অবিচ্ছেদ্য।

তারা একত্রে আসে এবং তাদের একজন যখন একাকী এসে তোমার সঙ্গে একাসনে বসে,তুমি মনে রেখ,তখন অপরজন তোমার শয্যায় শুয়ে আসে।



 

"গৃহ" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

নগর-প্রাচীরের ভেতরে গৃহ নির্মাণ করার পূর্বে তুমি নির্জন অরণ্যে গিয়ে তোমার কল্পলোকের এক কুঞ্জ রচনা কর।

কারণ গোধুলি বেলায় তোমার ঘরে ফেরার মত তোমার অন্তরের দিশাহীন পথিকও ঘরে ফিরতে চায়।



 

"পোশাক" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

পোশাক তোমাদের অধিকাংশ সৌন্দর্য করে,তবু অসুন্দরকে গোপন করে না।

তোমরা পোশাকের মাঝে সঙ্গোপনে থাকার স্বাধীনতা সন্ধান কর,কিন্তু লাভ কর এক শৃঙ্খল ও বন্ধন।



 

"আইন" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

তোমরা আইন প্রণয়ন করে আনন্দ পাও,

কিন্তু তোমরা সে আইন ভঙ্গ করে আরও বেশি আনন্দিত হও।

সাগর বেলায় খেলায় মগ্ন ছেলেমেয়েদের মত,যারা অবিচলচিত্তে বালু-সৌধ গড়ে তারপর উচ্ছ্বল হাসিতে মেতে তা ভেঙে ফেলে।



 

"স্বাধীনতা" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

আমি তোমাদের নগরীর দ্বারে এবং তোমাদের বাসগৃহে যেভাবে প্রণত হয়ে নিজেদের স্বাধীনতাকে পুজা করতে দেখেছি,

ক্রীতদাসেরা ঠিক তেমনি তাদের নিষ্ঠুর প্রভুর সামনে প্রণত হয়ে তার গুনকীর্তন করে,যদিও সে তাদের হত্যা করে।



 

"আত্মদর্শন" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

আত্মা সুনিদির্ষ্ট পথ ধরে চলে না,বেণুকান্ডের মতো সোজা বেড়ে ওঠে না।

আত্মা অসংখ্য পাপড়িমেলা পদ্মের মতো বিকশিত হয়।



 

"কথা বলা" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

তোমাদের চিন্তা যখন তোমাদের শান্তি ভঙ্গ করে তখন তোমরা কথা বলো।

তোমরা যখন অন্তরের নিরবতায় বসবাস করতে পার না তখন তোমরা মুখের মুখরতায় বসবাস কর।



 

"সময়" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

গতকাল হলো আজকের দিনের স্মৃতি এবং আগামীকাল আজকের দিনের স্বপ্ন।



 

"সৌন্দর্য" নিয়ে কাহলিল জিবরানের উক্তি-

প্রকৃত সৌন্দর্য থাকে আধ্যাত্মিক মতৈক্যের ভেতরে,যাকে ভালবাসা বলা হয় এবং যা একজন নারী ও পুরুষের মাঝে অবস্থান করে।

 

সৌন্দর্য প্রয়োজন নয়,সে এক পরম-পুলক।

এ কোনো তৃষ্ণার্ত মুখ নয় কিংবা সামনে বাড়িয়ে ধরা শূণ্য হাত নয়।বরং এক উদ্দীপ্ত হৃদয় এবং উল্লসিত চিত্ত।



 

কাহলিল জিবরানের আরো কিছু উক্তি-

যে হৃদয় থেকে সৎ,মানুষ তাকে পরিচালনা করে অন্ধের মতো।যে হৃদয় থেকে অসৎ সে মানুষকে পরিচালনা করে কসাইখানার পশুপালের মতো।

 

এবং প্রভু বললেন,তোমার শত্রুকে ভালবাসো।

অতঃপর আমি তাকে মান্য করলাম এবং নিজেকে ভালবাসলাম।

 

⋆পরবর্তীতে কাহলিল জিবরানের উক্তি আরও  যুক্ত করা হবে।


Read More: 














Post a Comment

Please don't share any link.
© Bihongom . All rights reserved. Developed by Jago Desain